পুরুষদের জন্য লাল ও হলুদ পোশাক পরিধান করার বিধান।


পুরুষদের সম্পূর্ণ একরঙের লাল ও হলুদ কাপড় পড়া নিষেধ।

আল্লাহর রাসুল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম পুরুষদেরকে সম্পূর্ণ একরঙের লাল ও হলুদ কাপড় পড়তে নিষেধ করেছেন।

উমার রাদিয়াল্লাহু আ’নহু বলেনঃ রাসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম আমাদেরকে লাল রঙের পোশাক পড়তে নিষেধ করেছেন। ( ইবনে মাজাহ ৩৫৯১ )

তবে অন্য হাদীস দ্বারা প্রমানিত হয় যে, শুধু এক কালারের লাল না হয়ে লালের মাঝে যদি অন্য রঙের স্ট্রাইপ/চেক থাকে তাহলে সেটা পড়া জায়েজ আছে।

“রাসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম ইয়েমেনি লাল হুল্লাহ পড়েছেন।” (বুখারী ৫৮৪৮)

উল্লেখ্যঃ তৎকালীন যুগে ইয়েমেনি লাল হুল্লাহর মাঝে কালো স্ট্রাইপ/চেক থাকতো। এ থেকে প্রমানিত হয় যে, লালের মাঝে অন্য রঙের চেক/স্ট্রাইপ থাকলে সেটা পড়া জায়েজ। ইবনুল কাইয়্যিমঃ যাআদ আল-মাআদ।

রাসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম, আলি রাদিয়াল্লাহু আ’নহুকে দুইটি হলুদ রঙয়ের কাপড় পড়া অবস্থায় দেখলেন। তিনি তখন বলেনঃ এই রঙ কাফেরদের জন্য, এই রঙের কাপড় পড়োনা। (আবু দাউদ : ৪০৪৪)

রাসুলুল্লাহ (সাঃ) আব্দুল্লাহ ইবনে আমর ইবনে আস (রা:) কে তার গায়ে পরিহিত হলুদ রঙ এর কাপড় বাসায় গিয়ে পুড়িয়ে দিতে বললেন আর বললেন এটি কাফের দের পোষাক। ( রিয়াদুস সালেহিন : ১৮০৮)

নারীরা লাল বা হলুদ পড়তে পারবেন। কিন্তু রঙ্গিন আকর্ষণীয় কোনো পোশাক পড়ে বাইরে যেতে পারবেন না। পোশাকের উপরে বোরখা অথবা চাদর পড়ে বাইরে যে‌তে হ‌বে।

আলী (রাঃ) হতে বর্নিত। তিনি বলেন, নাবী (সাঃ) আমাকে একজোড়া রেশমী কাপড় দিলেন।আমি তা পরিধান করলাম। তার মুখমণ্ডলে গোস্বার ভাব দেখতে পেয়ে আমি আমার মহীলাদের মাঝে তা ভাগ করে দিয়ে দিলাম।বুখারিঃ২৬১৪ ইঃফাঃ২৪৩৯ আহমাদঃ ১১৭১

আলী (রাঃ) থেকে বর্ণিত তিনি বলেন, আমি রসূলূল্লাহ (সাঃ) কে দেখেছি, তিনি ডান হাতে রেশম ধরলেন এবং বাম হাতে সোনা, অতঃপর বললেন, আমার উম্মতের পুরুষদের জন্য এ দু’টি বস্তু হারাম।’’ আবু দাউদঃ ৪০৫৭, নাসায়িঃ ৫১৪৪, ইবন মাজাহঃ ৩৫৯৫

রসুলুল্লাহ (সাঃ) আরও বলেন, আমার উম্মতের মধ্যে এমন কিছু লোক সৃষ্টি হবে, যারা ব্যভিচার, রেশম, মদ ও বাদ্যযন্ত্রকে হালাল সাব্যস্ত করবে। সহীহ বুখারীঃ ৫৫৯০

পুরুষদের জন্য হলুদ ও লাল জামা পরার ব্যাপারে হাদিসে নিষেধাজ্ঞা এসেছে। লাল ও হলুদ রঙ পুরুষদের জন্য এই কালারের পাঞ্জাবিও এড়িয়ে চলতে হবে।

রসুলুল্লাহ( সাঃ) আলি (রাঃ) কে দুইটি হলুদ রঙয়ের কাপড় পরা অবস্থায় দেখলেন। তিনি তখন বলেন, এই রঙ কাফেরদের জন্য, এই রঙের কাপড় পরিধান করো না। মুসলিমঃ ২০৭৭

উমার(রাঃ) বলেন,রসুলুল্লাহ (সাঃ) আমাদেরকে লাল রঙের পোশাক পরতে নিষেধ করেছেন। (মুসনাদে আহমাদ,ইবনে মাজাহঃ ৩৫৯১)

তবে শুধু এক কালারের লাল না হয়ে যদি লালের মাঝে অন্য রঙের স্ট্রাইপ/চেক থাকে তাহলে সেটা পরা জায়েজ আছে। তবে অন্য রঙের স্ট্রাইপ/চেক থাকলেও তাকওয়ার খাতিরে লাল রঙ এড়িয়ে চলাই উত্তম।

“এক লোক দুইটা লাল পোশাক পড়া ছিলো আর সে রাসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম কে সালাম দিলো। রাসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম তার সালামের জবাব দিলেন না”। ( আবু দাউদ, তিরমিযী। হাদীসটি হাসান সহীহ।)

শরীয়তের বিধান হলো পুরুষদের জন্য নিরেট লাল এবং হলুদ কালারের পোশাক পরিধান করা মাকরুহ। রাসুল সাঃ এমন কাপড় পরিধান করতে নিষেধ করেছেন।

হাদীস শরীফে এসেছে – ইসহাক ইবনু মূসা আনসারী (রহঃ) ….. আলী ইবনু আবী তালিব রাদিয়াল্লাহু আনহু থেকে বর্ণনা করেন যে, রাসূল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম রেশম, কুসুম রঙ্গের কাপড় (হলুদ), স্বর্ণের আংটি এবং রুকূতে কুরআন পাঠ করা নিষেধ করেছেন। – মুসলিম, তিরমিজী হাদিস নম্বরঃ ২৬৪ [আল মাদানী প্রকাশনী]

হাসান ইবনু দাঊদ মুনকাদিরী (রহঃ) … আলী (রাঃ) থেকে বর্ণিত। তিনি বলেন, রাসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম আমাকে নিষেধ করেছেন, আর আমি বলি না যে, তোমাদের নিষেধ করেছেন- সোনার আংটি রেশম মিশ্রিত কাপড়, গাঢ় লাল রং-এর কাপড় এবং কুসুম রং-এর কাপড় থেকে নিষেধ করেছেন এবং রুকু অবস্থায় কিরাআত থেকে।(নাসাঈ ১১৪৫)

আবূ দাঊদ সুলায়মান ইবনু সায়ফ (রহঃ) … আলী ইবনু আবূ তালিব (রাঃ) থেকে বর্ণিত। তিনি বলেন, আমার বন্ধুটি আমাকে তিনটি কাজ থেকে নিষেধ করেছেন। আমি বলি না যে, লোকদের নিষেধ করেছেন। তিনি আমাকে নিষেধ করেছেন সোনার আংটি পরিধান করতে, রেশম মিশ্রিত কাপড়, কুসুম রংয়ের কাপড় এবং গাঢ় লাল রংয়ের কাপড় পরিধান করতে। আর আমি যেন রুকু এবং সিজদা অবস্থায় কুরআন পাঠ না করি। (নাসায়ী ১১২২)

আলী ইবনু আবূ তালিব (রাঃ) হতে বর্ণিত আছে, তিনি বলেন, আমাকে রাসূলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম স্বর্ণের আংটি পরতে, রেশমি পোশাক পরতে, রুকু সিজদায় কুরআনের আয়াত পাঠ করতে এবং হলুদ রং-এর পোশাক পরতে বারণ করেছেন।(তিরমিযি ১৭৩৭)

তবে এক্ষেত্রে উলামায়ে কেরামদের মাঝে মতবিরোধ রয়েছে,কিছু উলামায়ে কেরাম এটাকে মাকরুহে তানযিহি (অনুত্তম) বলেছেন। (ইমদাদুল ফাতওয়া ৪/১৪৫)

কিছু উলামায়ে কেরাম বলেছেন যে পুরুষদের জন্য লাল এবং হলুদ রং এর পোশাক পরিধান করা জায়েয আছে,তবে মহিলাদের সাথে যেনো সাদৃশ্যতা না রাখে,সেই দিকে পূর্ণ খেয়াল রাখতে হবে। (কিতাবুন নাওয়াজেল ১৫/৩০৫)

তবে যদি কোন পোশাকে লাল বা হলুদ রং এর পাশাপাশি যদি অন্য রং থাকে,তাহলে সর্বসম্মতিক্রমে পুরুষদের জন্য এমন কাপড় পরিধান করা জায়েজ আছে।

সুতরাং যেহেতু পুরুষদের জন্য নিরেট লাল বা হলুদ কাপড় পরিধান করার ব্যাপারে উলামায়ে কেরামদের মাঝে মতবিরোধ রয়েছে,তাই এহেন পোশাক পরিধান না করাই উত্তম হবে।

(আল্লাহ-ই ভালো জানেন)


Leave a Reply

Your email address will not be published.