মহিলাদের জন্য কতিপয় জরুরি উপদেশ।

মহিলাদের জন্য উপদেশ

🌹 আসসালামু আলাইকুম ওয়া রহমাতুল্লাহ।  🌹

মহিলাদের জন্য কতিপয় জরুরী উপদেশ 


১। পুরাতন কোন বিষয়ে খোঁটা দেয়া বড়ই অন্যায়। মহিলাদের এ অভ্যাস খুব বেশি। তারা যে সব বেদনাদায়ক এবং মনঃকষ্টকর ঘটনা ও ঝগড়া-কলহের আপোস-মীমাংসা হয়ে গেছে, অনুরূপ নতুন কোন ঘটনা উপস্থিত হলে তারা সে পুরান কাহিনী নিয়ে খোঁটা দিয়ে দ্বন্দ্ব -কলহ বাড়িয়ে দেয়। এতে তারা গুনাহগার তো হয়ই, তদুপরি পুরান দুঃখজনক ঘটনার কথা স্মরণে এলে অন্তর পুনরায় ভারাক্রান্ত হয়ে যায়।


২। শশুর বাড়ীর দোষত্রুটি পিত্রালয়ে বর্ণনা করা ঠিক নয়। তদ্রুপ পিত্রালয়ের প্রশংসা স্বামীর বাড়ী গিয়ে বেশি বেশি প্রচার করতে নেই।


৩। অযথা বেশি কথা বলার অভ্যাস করবে না।


৪। যে সকল রমণী অন্য বাড়ীর কথা নিয়ে এসে তোমার ঘরে আসর জমিয়ে বসে, তুমি তাদের কথায় কখনো যোগ দিবে না।


৫। যে সব মেয়েরা তোমার নিকট পড়তে আসে তাদের দ্বারা নিজ গৃহের কোন কাজ করাবে না এবং তোমার ছেলেমেয়ে কোলে নেওয়াবে না।


৬। কারো অন্যায়ের প্রতিশোধ নিতে গিয়ে তার বংশের বা মৃত ব্যক্তিদের দোষ উদঘাটন করবে না। এতে যেমন গুনাহ হয় তেমনি অপরের প্রাণে আঘাতও লাগে।


৭। কারো থালা-বাসন বা হাড়ি পাতিল কোনো কারণ বশত তোমার ব্যবহারের জন্য এনে থাকলে, তা ব্যবহারের পর তৎক্ষণাৎ তা মালিকের নিকট ফিরিয়ে দিবে।


৮। অতি জোরে চিৎকার দিয়ে কাউকেই ডাকবে না।


৯। অপরের নিকটে তোমার নিজ পরিজনের লোকের বা ছেলেমেয়ের প্রশংসা করবে না।


১০। কোন কোন কারণ বশতঃ মজলিসের সকল লোক যদি দাঁড়িয়ে যায়, তবে তুমি একা বসে থেকো না, এতে তোমার অহংকার বোধ প্রকাশ পায়।


১১। মেহমানের সামনে কখনোই কারো উপর রাগ করবে না। এতে মেহমান যেরূপ প্রফুল্ল মনে বেড়াতে আসে, সেরূপ প্রফুল্ল মন থাকে না।


১২। শত্রুর সাথে ভদ্রোচিত আচরণ করো। এতে শত্রুর শত্রুতা কমে যায়।


১৩। খানা খাওয়ার পর বাসন না তুলে তুমি উঠে যেও না, তা শিষ্টাচার বিরোধী। বরং বাসন তুলে নেওয়ার পর তুমি নিজে উঠবে।

১৪। তোমার কোনো বুযুর্গের মাথার নিকট বসবে না। কিন্তু যদি তিনি হুকুম করেন, তবে তার হুকুম পালন করাটাই আদব।

১৫। বিশেষ কারণ বশত যদি রাতে কোথাও যেতে হয়, তবে হাতের ও পায়ের অলংকার খুলে হাতে নিয়ে যাবে। অলংকারের ঝনঝনানীর শব্দ করতে করতে পথ চলবে না।


১৭। এমন ভাবে চলবে না, যেন তাতে অহংকার প্রকাশ পায়।


১৮। না জেনে কেবল অনুমানের ভিত্তিতে কারো ওপর কোন দোষ চাপিও না। এতে সে মনে বড় ব্যথা পায়।


আল্লাহ আমাদের সবাইকে সঠিক বুঝ বোঝার তাওফিক দান করুন।
— আমীন। 🌹🌹 


Leave a Reply

Your email address will not be published.