মৃত ব্যক্তির জন্য নামাজ ও কোরআন পড়া কি ঠিক?


প্রশ্ন : মৃত ব্যক্তির জন্য নামাজ ও কোরআন পড়া কি ঠিক?

উত্তর : মৃত ব্যক্তির জন্য নামাজ ও কোরআন পড়া জায়েজ নেই। এগুলো আল্লাহর জন্য পড়া হয়, কোনো মানুষের জন্য। কোনো ব্যক্তির জন্য নামাজ, রোজা, কোরআন পড়া জায়েজ নেই। বরং এসব করলে এগুলো বেদআত হবে। আপনি এসব ইবাদত করবেন আল্লাহর সন্তুষ্টির জন্য। এসব ইবাদত শুধু আল্লাহর জন্য। আপনি যেটা করতে পারেন সেটা হলো, মৃত ব্যক্তির জন্য দোয়া করতে পারেন। দান-সদকা করতে পারেন, এসব মৃত ব্যক্তির জন্য করতে পারেন।

প্রশ্ন : আমাদের সমাজে কিছু জায়গায় রেওয়াজ আছে , লাশ দাফনের পর কয়েক জন আলেম দিয়ে কোরআন পড়ানো হয়। এটি কি ইসলামে জায়েজ আছে?

উত্তর : এ রকম কোনো কিছু ইসলামে জায়েজ নেই। এগুলো একেবারেই ভিত্তিহীন। রাসুল (সা.) হাদিসে বলেছেন, যেসব জিনিস ইসলামে নেই, যিনি নতুন নতুন উদ্ভাবন করেছেন, তিনিও প্রত্যাখ্যাত হলেন, জিনিসগুলোও প্রত্যাখ্যাত হলো। এগুলোকে রাসুল (সা.) বেদআত বলেছেন। আগে জানতে হবে, কেন আমরা এসব করব? এটা তো মৃত ব্যক্তি উপকৃত হবে ভেবে আমরা করছি। কিন্তু, রাসুল (সা.) তো এটি করতে নিষেধ করেছেন। এমনকি পূর্বের কেউ এটি করেননি। দ্বিতীয় বিষয় হলো—কোরআন তেলাওয়াতের কথা। কোরআন তেলাওয়াত যদি আল্লাহর জন্য করেন, তাহলে তাঁরা সওয়াব পাবেন। কিন্তু, অন্যের জন্য করলে সেটি হবে না। এটি যদি টাকা রোজগারের উদ্দেশ্যে করেন, তাহলে সেটা শিরক হয়ে যাবে। আর, যাঁরা মৃত ব্যক্তির কবরের পাশে পড়ছেন, এটা তাঁদের ব্যক্তিগত ইবাদত। এতে মৃত ব্যক্তির কোনো লাভ নেই। এটা নতুন আবিষ্কার।


2 responses to “মৃত ব্যক্তির জন্য নামাজ ও কোরআন পড়া কি ঠিক?”

Leave a Reply

Your email address will not be published.