Monday, August 8
Shadow

Tag: দোয়া

বৃষ্টির দিনে রাসূল ( সা. ) এর ৬ টি আমল

বৃষ্টির দিনে রাসূল ( সা. ) এর ৬ টি আমল

হাদিস ও দোয়া
বৃষ্টির দিনে যে ৬টি আমল করতেন রাসুল সাঃ ১. বৃষ্টির পানি স্পর্শ করা বৃষ্টির প্রতিটি ফোঁটা হয়ে নামে রহমতের ধারা। তাই সুন্নত হলো বৃষ্টির ছোঁয়া পেতে বস্ত্রাংশ মেলে ধরা। আনাস [রা.] বলেন, 'আমরা রাসুলুল্লাহ সাঃ এর সঙ্গে থাকাকালে একবার বৃষ্টি নামল। রাসুলুল্লাহ সাঃ তখন তাঁর পরিধেয় প্রসারিত করলেন, যাতে পানি তাকে স্পর্শ করতে পারে। আমরা বললাম, আপনি কেন এমন করলেন? তিনি বললেন, কারণ তা তার রবের কাছ থেকে মাত্রই এসেছে।' [মুসলিম : ৮৯৮]। ২. বৃষ্টির দোয়া পড়া রহমতের বৃষ্টি দেখে দোয়া পড়া সুন্নত। আয়েশা [রা.] বলেন, রাসুলুল্লাহ সাঃ বৃষ্টি হতে দেখলে বলতেন, 'আল্লাহুম্মা ছাইয়িবান নাফিয়া'। [অর্থাৎ হে আল্লাহ, এমন বৃষ্টি আমাদের ওপর বর্ষণ করুন যাতে ঢল, ধস বা আজাবের মতো কোনো অমঙ্গল নিহিত নেই।] [বোখারি : ১০৩২]। ৩. বৃষ্টি চলাকালে দোয়া করা বৃষ্টি চলমান সময়ে দোয়া কবুল হয়। তাই এ সময় ...
দোয়া কবুল না হওয়ার কারণ ও দোয়া করার সুন্নতী তরিকা

দোয়া কবুল না হওয়ার কারণ ও দোয়া করার সুন্নতী তরিকা

আলোচনা ও আমল
আমাদের দোয়া কেন কবুল হয় না! আসুন জেনে নেই আর নিজের সাথে মিলিয়ে নিই । দোয়া মুমিনদের হাতিয়ার। দোয়ার মাধ্যমে অসম্ভবকেও সম্ভব করা যায়। এমনকি দোয়ার ফলে ভাগ্যও ঘুরে যায়। পবিত্র কোরআনে আল্লাহ বলেন, ‘তোমরা আমার কাছে দোয়া করো। আমি তোমাদের দোয়া কবুল করব।___(সূরা মুমিন, আয়াত ৬০।) আরবি দোয়া শব্দের অর্থ ডাকা, আহ্বান করা, প্রার্থনা করা, কোনো কিছু চাওয়া ইত্যাদি।রাসুল (সা.) বলেছেন, ‘দোয়া ছাড়া আর কিছুই আল্লাহর সিদ্ধান্তকে বদলাতে পারে না।___(তিরমিজি, হাদিস নম্বর ২১৩৯।) দোয়া সব ইবাদতের মূল। দোয়া কবুলের অনেক শর্ত আছে। আল্লাহর উদ্দেশে একমাত্র তার সন্তুষ্টি অর্জনের জন্য খালেস দিলে দোয়া করতে হবে। অনেক মানুষ এমন রয়েছে যাদের দোয়া আল্লাহতায়ালা কবুল করেন না বলে জানিয়ে দিয়েছেন। ১.নিরাশ হওয়া দোয়ার পর আল্লাহর প্রতি পূর্ণ বিশ্বাস রাখতে হবে যে আল্লাহ আমার দোয়া কবুল কর...
বিভিন্ন ধরনের বালা-মুসিবত দূর করার আমল

বিভিন্ন ধরনের বালা-মুসিবত দূর করার আমল

হাদিস ও দোয়া
দোয়া: لَا إِلَهَ إِلَّا أَنْتَ سُبْحَانَكَ إِنِّي كُنْتُ مِنَ الظَّالِمِينَ উচ্চারণ: লা ইলাহা ইল্লা আন্তা সুবহানাকা ইন্নি কুনতু মিনাজ্ জালিমীন। অর্থ: আপনি ব্যতীত আর কোনো উপাস্য নেই। আমি আপনার পবিত্রতা ঘোষণা করছি। অবশ্যই আমি পাপী। -সূরা আল আম্বিয়া: ৮৭ ফজিলত ক. এ আয়াতে আল্লাহতায়ালা ইরশাদ করেছেন, আমি নবী ইউনুসের প্রার্থনা মঞ্জুর করেছি। তাকে দু:খ থেকে মুক্তি দিয়েছি। অনুরূপভাবে যে মুমিনরা এ দোয়া পড়বে আমি তাদেরও বিভিন্ন বালা-মুসিবত থেকে মুক্তি দিব। -সূরা আল আম্বিয়া: ৮৮ খ. হজরত নবী করিম (সা.) ইরশাদ করেছেন, যে ব্যক্তি হজরত ইউনুস (আ.)-এর ভাষায় দোয়া করবে, সে যে সমস্যায়ই থাকুক আল্লাহতায়ালা তার ডাকে সাড়া দিবেন। -তিরমিজি: ৩৫০৫ গ. হজরত রাসূলুল্লাহ (সা.) আরও ইরশাদ করেছেন, আমার ভাই ইউনুসের দোয়াটি খুব সুন্দর। এর প্রথম অংশে আছে কালিমায়ে তায়্যিবা। মাঝের অংশে আছে ...